1. arjunkumer1977@gmail.com : Arjun :
  2. bd.dainikonlineshiksha@gmail.com : দৈনিক অনলাইন শিক্ষা :
  3. yesamahmud1986@gmail.com : Yousuf :
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:৪৯ অপরাহ্ন
বিজ্ঞাপন নোটিশ :
* * সাংবাদিক নিয়োগ * * দৈনিক অনলাইন শিক্ষাতে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে *** স্বনামধন্য দৈনিক অনলাইন শিক্ষা / অনলাইন নিউজ পত্রিকাতে জেলা- উপজেলা পর্যায়ে সংবাদকর্মী আবশ্যক *** শুধুমাত্র আগ্রহী প্রার্থী সদ্যতোলা এক কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি ও ভোটার আইডি কার্ড এর কালার এপিঠ ওপিঠ ফটোকপি এবং ইংরেজিতে সিভি গ্রহণযোগ্য নয়, শুধুমাত্র বাংলায় লেখা জীবন বৃত্তান্ত সিভি পাঠান দৈনিক অনলাইন শিক্ষার এই জিমেইল নাম্বারে- bd.dainikonlineshiksha@gmail.com *** আরো বিস্তারিত তথ্যের জন্য ও দৈনিক অনলাইন শিক্ষাতে সংবাদকর্মী হিসেবে নিয়োগ পেতে সরাসরি দৈনিক অনলাইন শিক্ষার সম্পাদকের মুঠোফোনে যোগাযোগ করুন- 01886 - 902317 ** সকল প্রকার নিউজ পাঠান দৈনিক অনলাইন শিক্ষার এই জিমেইল নাম্বারে-dainikonlineshiksha@gmail.com শিক্ষাবিষয়ক ওয়েবসাইট দৈনিক অনলাইন শিক্ষা / সত্য প্রকাশে আপোসহীন **
শিরোনাম -
মাগুরায় কারাবন্দীরা পেলেন রঙিন টেলিভিশনসহ বিভিন্ন সামগ্রী আমতৈল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত মাদ্রাসা শিক্ষক – কর্মচারীদের জানুয়ারি -২০২৩ মাসের বেতনের চেক ছাড় যাদুরচর ডিগ্রি কলজ নবীন শির্ক্ষাথীদর সাথ শিক্ষকদর পরিচিত সভা অনুষ্ঠিত ঠাকুরগাঁও -৩ আসনের উপ-নির্বাচনে জাপার প্রার্থী হাফিজের জয় ডাঃ শাহজাহান আকুঞ্জি তাওহিদি দাখিল মাদ্রাসার ডিসেম্বর, জানুয়ারি মাসের উপবৃত্তির টাকা প্রদান ৩০ এপ্রিল থেকে শুরু এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অভয়নগরে নবীদের সম্পর্কে কটুক্তি করায় স্কুল শিক্ষক সাময়িক বহিষ্কার খুলনা জেলা শিক্ষা অফিসার থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের খুলনা অঞ্চলের উপ-পরিচালক পদে পদোন্নতি হওয়ায় ফুলেল শুভেচ্ছা দুই দিন ব্যাপী কর্মী দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণের সমাপনী

নতুন পে-স্কেল বা মহার্ঘ ভাতার ঘোষণার আশ্বাস না পেলে আন্দোলনে নামবে সরকারি কর্মচারী সংগঠন

  • প্রকাশিত: সোমবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৩৭ ৭১৫ বার পড়া হয়েছে

নতুন পে-স্কেল বা মহার্ঘ ভাতার ঘোষণার আশ্বাস না পেলে আন্দোলনে নামবে সরকারি কর্মচারী সংগঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক –

নতুন পে-স্কেল বা মহার্ঘ ভাতার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্বাস না পেলে আন্দোলনে নামবে সরকারি কর্মচারীদের সংগঠনগুলো। সরকারি কর্মচারীরা প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে আশ্বাস পেতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ও সাবেক মন্ত্রী শাজাহান খানের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন বলে জানা গেছে। এদিকে নতুন পে-স্কেল বা মহার্ঘ ভাতা দেওয়ার পরিকল্পনা এ মুহূর্তে নেই- অর্থমন্ত্রীর এমন ঘোষণার পরিপ্রেক্ষিতে গত কয়েক দিনে কর্মচারী সংগঠনগুলোর নেতারা একাধিক বৈঠক করেছেন।

সর্বশেষ ২০১৫ খ্রিষ্টাব্দে বেতন কাঠামো ঘোষণা করেছিল সরকার। কর্মচারীদের প্রত্যাশা, প্রতি পাঁচ বছর পরপর নতুন বেতন কাঠামো ঘোষণা করা হবে। অন্যথায় স্থায়ী বেতন কমিশন গঠন করে প্রতিবছর মূল্যস্ম্ফীতি অনুযায়ী কর্মচারীদের বেতন সমন্বয় করা। সংশ্নিষ্টরা বলছেন, গত বেতন কমিশন গঠনের পর এমন একটি উদ্যোগের আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু কার্যকর করা হয়নি। কর্মচারী সংগঠনগুলোর নেতারা বলছেন, গত মঙ্গলবার অর্থমন্ত্রীর ঘোষণায় নিম্ন আয়ের সরকারি কর্মচারীরা খুবই হতাশ হয়েছেন। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির বাজারে পরিবারের ব্যয়ভার বহনে সমস্যায় আছেন কর্মচারীরা। এ কারণে সংগঠনের কর্মী পর্যায় থেকে আন্দোলনে যাওয়ার চাপ রয়েছে। তবে আন্দোলনে যাওয়ার আগে সংগঠনের নেতারা প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে বার্তা পাওয়ার চেষ্টা করছেন। ইতিবাচক কোনো বার্তা পেলে আন্দোলনের দিকে হাঁটবেন না তাঁরা।

অর্থমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী দাবি আদায় ঐক্য পরিষদের সভাপতি মাহমুদুল হাসান বলেন, সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে যোগাযোগের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে আশ্বাস পাব এমন অবস্থায় দিন কাটাচ্ছি। ঠিক সেই মুহূর্তে জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রীর বক্তব্যে সরকারি কর্মচারীরা খুবই হতাশ হয়েছেন। আমাদের প্রত্যাশা, প্রধানমন্ত্রী আমাদের হতাশ করবেন না। তিনি বলেন, গত কয়েক বছর ধরে আমরা আন্দোলনের মধ্যেই আছি। কিন্তু সরকার বিব্রত হয় এমন ধরনের পদক্ষেপ নিইনি। এখন সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে কোনো আশ্বাস না পেলে আন্দোলনে নামার বিকল্প থাকবে না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, কর্মচারী নেতারা বিভিন্ন সময়ে তাঁদের দাবি নিয়ে আমার কাছে এসেছেন। কিন্তু এ বিষয়ে আমার পর্যায় থেকে বলার কিছু নেই। তিনি বলেন, এর আগে প্রধানমন্ত্রী শতভাগের ওপরে বেতন-ভাতা বাড়িয়েছেন। এখন দেশে একটি সংকটের সময় চলছে। তাই এই মুহূর্তে সবারই ধৈর্য ধরা প্রয়োজন বলে মনে করি।

বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী কল্যাণ ফেডারেশনের সভাপতি হেদায়েত হোসেন বলেন, দ্রব্যমূল্য বেড়ে যাওয়ার কারণে নিম্ন গ্রেডের কর্মচারীরা খারাপ সময় পার করছেন। সাত বছরের বেশি সময় হয়ে গেলেও নতুন পে-স্কেল বা অন্য কোনো সুবিধা না আসায় আমরা নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনের জন্য সংগঠিত হয়েছিলাম। গত বছরের জুন মাসে ঢাকায় মহাসমাবেশের ঘোষণা দিয়েছিলাম। কিন্তু সরকারের আশ্বাসে সেটা স্থগিত করা হয়েছে। আমরা সরকারের আশ্বাস অনুযায়ী সাধারণ সদস্যদের আশ্বস্ত করেছিলাম।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
দৈনিক অনলাইন শিক্ষা-অনলাইন নিউজ পত্রিকার যে কোনো লেখা, বা, ছবি, ও ভিডিও , অনুমতি ছাড়া কপি করা , বা, বে-আইনি ভাবে ব্যবহার করা আইনিভাবে দণ্ডনীয় অপরাধ। © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- ২০১৫
ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট
আপনার পছন্দের ভাষা পরিবর্তন করুন Translate »