1. arjunkumer1977@gmail.com : Arjun :
  2. bd.dainikonlineshiksha@gmail.com : দৈনিক অনলাইন শিক্ষা :
  3. yesamahmud1986@gmail.com : Yousuf :
শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৪৫ অপরাহ্ন
বিজ্ঞাপন নোটিশ :
* * সাংবাদিক নিয়োগ * * দৈনিক অনলাইন শিক্ষাতে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে *** স্বনামধন্য দৈনিক অনলাইন শিক্ষা / অনলাইন নিউজ পত্রিকাতে জেলা- উপজেলা পর্যায়ে সংবাদকর্মী আবশ্যক *** শুধুমাত্র আগ্রহী প্রার্থী সদ্যতোলা এক কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি ও ভোটার আইডি কার্ড এর কালার এপিঠ ওপিঠ ফটোকপি এবং ইংরেজিতে সিভি গ্রহণযোগ্য নয়, শুধুমাত্র বাংলায় লেখা জীবন বৃত্তান্ত সিভি পাঠান দৈনিক অনলাইন শিক্ষার এই জিমেইল নাম্বারে- bd.dainikonlineshiksha@gmail.com *** আরো বিস্তারিত তথ্যের জন্য ও দৈনিক অনলাইন শিক্ষাতে সংবাদকর্মী হিসেবে নিয়োগ পেতে সরাসরি দৈনিক অনলাইন শিক্ষার সম্পাদকের মুঠোফোনে যোগাযোগ করুন- 01886 - 902317 ** সকল প্রকার নিউজ পাঠান দৈনিক অনলাইন শিক্ষার এই জিমেইল নাম্বারে-dainikonlineshiksha@gmail.com শিক্ষাবিষয়ক ওয়েবসাইট দৈনিক অনলাইন শিক্ষা / সত্য প্রকাশে আপোসহীন **

১৪বছর ধরে বাঁশের সাঁকোই একমাত্র ভরসা ৮গ্রামের মানুষের

  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ৮ নভেম্বর, ২০২২
  • ৪৩ ৭১৫ বার পড়া হয়েছে

১৪বছর ধরে বাঁশের সাঁকোই একমাত্র ভরসা ৮গ্রামের মানুষের।

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি -এমদাদুল হক

রৌমারী উপজেলার সদর ইউনিয়নের সুইটমোড়-কান্দাপাড়া সড়কের সোনাভরি নদীর (শাখা)উপর নির্মিত বাঁশের সাঁকোই
যেনো একমাত্র ভরসা। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন শিক্ষাথর্ীসহ ৮গ্রামের ১৫হাজারেরও অধিক মানুষ। উৎপাদিত
কৃষিপণ্য আনা নেওয়ায় গুণতে হচ্ছে বাড়তি খরচ কৃষকদের। দীর্ঘ ১৪ বছর ধরে অচলাবস্থা চললেও দেখার যেনো কেউ
নেই। দুর্ভোগ কমাতে ওই জায়গায় একটি ব্রিজ নির্মাণের দাবি স্থানীয়দের।
সোমবার সকালে সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, উপজেলার সদর ইউনিয়নের সুইটমোড়-কান্দাপাড়া সড়কের কান্দাপাড়া
নামক এলাকায় সোনাভারি নদীর (শাখা) উপর একটি বাঁশের সঁাকো নির্মাণ করা হয়েছে। সঁাকোটির অবস্থা নড়বড়ে। প্রায়
৬০মিটার দৈর্ঘ্যের এ সঁাকো দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছেন শিশু শিক্ষাথর্ীরা। উৎপাদিত কৃষিপণ্য মাথায় করে
পার হচ্ছেন অনেকে।
কান্দাপাড়া গ্রামের কৃষক জয়নাল আবেদীন বলেন, মানুষের দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে নিজেদের উদ্যোগ ও স্বেচ্ছাশ্রমে এই
বাঁশের ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়েছে। দীর্ঘ ১৪বছর ধরে মানুষ খুব কষ্ট এ পথে যাতায়াত করছেন। মানুষের দু:খের যেনো
শেষ নেই।
ডেকোরেটর ব্যবসায়ি আমির আলী বলেন, বঁাশের এ ব্রিজটি দিয়ে এ অঞ্চলের বয়স্ক মানুষ, স্কুল, কলেজগামী শিক্ষাথর্ী ও
রোগিদের দুর্ভোগের শেষ নেই। নিরুপায় হয়ে মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পার হচ্ছেন। অনেক সময় সাঁকোর খুঁটি ও মঁাচা
ভেঙে ঘটে দুর্ঘটনা।
সেতু নির্মাণ না হওয়ায় উৎপাদিত কৃষিপণ্য পরিবহণে অতিরিক্ত টাকা খরচ এবং ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন ওই
এলাকার কৃষকরা বললেন সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান। তাঁর ভাষ্য, ওই জায়গায় ৬০ মিটার দৈর্ঘ্যের একটি ব্রিজ
নির্মাণ করা গেলে হাজার হাজার মানুষের চলাচলের দুর্ভোগ দূর হবে।
ঝুঁকিপূর্ণ বঁাশোর সাঁকো দিয়ে বেকারির মালামাল বোঝাই মটরসাইকেলে করে পার হচ্ছিলেন বিক্রয় প্রতিনিধি রাসেল মিয়া।
তিনি বলেন, এই সাঁকোতে উঠলেই মনে হয় যেনো জীবন শেষ। আতঙ্ক নিয়ে পারাপার হতে হয়।
ওই সঁাকো দিয়ে নিয়মিত যাতায়াত করেন যাদুরচর মডেল কলেজের প্রভাষক হাবিবুর রহমান।তিনি বলেন, এখানে ব্রিজ না
থাকায় সারা বছর মানুষ দুর্ভোগে পোহান। বন্যার সময় বাঁশের সাঁকোটি ভেঙে গিয়ে আরও দুর্ভোগ বেড়ে যায়।
রৌমারী উপজেলার প্রকৌশলী যুবায়েত হোসেন বলেন, উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে এ উপজেলার ৩০টি ব্রিজের তালিকা
দেওয়া আছে। এর মধ্যে কান্দাপাড়া এলাকায় একটি সেতু নির্মাণে উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবভুক্ত (ডিপিপি) করা হয়েছে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
দৈনিক অনলাইন শিক্ষা-অনলাইন নিউজ পত্রিকার যে কোনো লেখা, বা, ছবি, ও ভিডিও , অনুমতি ছাড়া কপি করা , বা, বে-আইনি ভাবে ব্যবহার করা আইনিভাবে দণ্ডনীয় অপরাধ। © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- ২০১৫
ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট
আপনার পছন্দের ভাষা পরিবর্তন করুন Translate »